বাংলাদেশ

মাদ্রাসার বাথরুমে মিলল শিশুর ঝুলন্ত মরদেহ

নরসিংদীর মাধবদীতে মাদ্রাসার বাথরুম থেকে শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে শিক্ষকরা। মাধবদী উপজেলার ভগীরথপুরের জামিয়া কওমিয়া মহিলা মাদ্রাসা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

মাইশা নামের ১০ বছর বয়সী ওই ছাত্রীর বাড়ি ভগীরথপুরে। সে থাকত মাদ্রাসার তৃতীয় তলায় এবং মরদেহ পাওয়া গেছে চতুর্থ তলার বাথরুমের পানির পাইপের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায়।

মাদ্রাসার মুহতামিম মুফতি আসানউল্লাহ্ বলেন, ‘হুজুর ও খাদেম আমাকে বিষয়টি জানালে দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। মাইশাকে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’

মাইশার চাচা মোছলেহ উদ্দিন জানান, মাদ্রাসা থেকে শিশুটির বাবাকে ফোন করে জানানো হয় যে তার মেয়ে অসুস্থ। তাকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে। হাসপাতালে গিয়ে শোনেন, মেয়ে মারা গেছে।

শিশুটির মায়ের দাবি, তার মেয়েকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে। মাইশার পুরো শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মাদ্রাসার হুজুররাই এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত। দাফনের পর তারা মামলা করবেন।

মাধবদী থানার পরিদর্শক মো. রকিবুজ্জামান বলেন, ‘ঘটনাটি সন্দেহজনক। শিশুটির কপালে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে এখনো মামলা করেনি। তাই কাউকে আটক করা যাচ্ছে না।’

এর আগে গত ১৯ অক্টোবর এই মাদ্রাসা থেকে আফরিন নামের আরেক ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ডিসেম্বরেই দুটি শৈত্যপ্রবাহ

সারা দেশে দিনের ও রাতের তাপমাত্রা ধারাবাহিকভাবে কমতে শুরু করেছে। আগামী পাঁচ দিনে আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।