মাকে জ্বালাবি না নার্সের এমন ভিডিও ভাইরাল

সোশ্যাল মিডিয়া এমন এক প্ল্যাটফর্ম যেখানে অনেকে নিজের গুনাবলী স্বাচ্ছন্দ্যে প্রকাশ করে। কেউ ভালো গাইতে পারেন কেউ ভালো নাচতে পারে।

সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে বহু প্রতিভা আমাদের চোখের সামনে আসে। অনেক নেটিজেন এই ইন্সটাগ্রামের মাধ্যমে নিজের শখ ভালোলাগাকে,

সবার সামনে পরিবেশন করছেন। প্রতিদিন প্রতি মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে। কেউ নিজের নাচের, কেউ গানের, কেউবা আঁকার,

আবার কেউ নিজের শিল্পীসত্তাকে প্রকাশ করছেন এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই। তবে সবসময় নাচ গান নয় অনেক সময় কিছু কিছু আবেগপ্রবণ ভিডিও ভাইরাল হয় যা নেট জনতাদের এক লহমায় আনন্দ করে দেয়। সম্প্রতি ইন্টারনেট দুনিয়াতে একটি মিষ্টি বাচ্চার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। আর এই ভিডিও এক মুহূর্তে এক আবেগে ভরিয়ে দিয়েছে। যা নিমেষেই মন জিতে নিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় হাজার হাজার নেটিজেনদের। সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার হওয়া ভিডিয়োটি দেখে বোঝা যাচ্ছে সেটি কোনও একটি হাসপাতালের ভিডিও। শেয়ার করা ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে একটি নার্স এবং সদ্যোজাত এক শিশু। আর সেই একরত্তির সঙ্গে মজার কথোপকথনে ব্যস্ত নার্সটি। শিশুটিকে অনেক কিছু বোঝাচ্ছেন সেই নার্স।

তিনি বোঝাচ্ছেন শিশুটি যেন শান্ত হয়ে থাকে। ভিডিয়োটিতে শিশুটিকে আদর করে ওই নার্সকে বলতে শোনা যাচ্ছে, “বুঝেছি তোমার খিদে পেয়েছে। একটু পরেই তোমাকে খাবার দেওয়া হবে। একদম এরকম শান্ত থাকবে কিন্তু। মাকে একদম জ্বালাবে না। ভালো বাচ্চারা মাকে জ্বালায় না। গুড বয় না তুই, ঠিক এরকম শান্ত থাকবি। বোঝাচ্ছি তো তোকে, বকিনি তো!” এদিকে, একরত্তি খুদেটিও একটুও না কেঁদে চুপ করে সেই কথাগুলি শুনছে। একরত্তির মুখের ভাব দেখলে সকলের মন ভরে যাবে। একদম এই শিশুর জন্মানোর পরেই হাসপাতালের মধ্যেই এই নার্স ছোট্ট সদ্য জন্মানো শিশুর সাথে কথা বলেছেন। ইতমধ্যে এই ভিডিওটি দেখে হাজারো হাজারো মানুষ ভালোবাসা জানিয়েছেন। নিমেষে বেশ ভাইরাল হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সদ্যোজাত শিশুটির সঙ্গে নার্সের এই মিষ্টি মুহূর্তের ভিডিও। এই ভিডিও হাজারো নেটিজেনদের মুখে হাসি ফুটিয়েছে । অনেকেই শিশুটির প্রতি নিজেদের ভালোবাসা এবং স্নেহ উজাড় করে দিয়েছেন। দু’জনের কথোপকথন দেখে হতবাক নেটদুনিয়া৷ ঝড়ের গতিতে এখন ছড়িয়ে পড়ছে এই মিষ্টি ভিডিও। সদ্যোজাত শিশুর সঙ্গে নার্সের এই ভিডিও দেখে নেটদুনিয়া ভালই মজা পেয়েছে। তাই এই ভিডিও ভাইরাল হতে সময় নেয়নি বেশি। ভিডিওটি টুইটারের Viral Story নামের একটি অ্যাকাউন্ট থেকে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই হাজার হাজার মানুষ দেখেছেন ভিডিওটিতে সাথে লাইক করে ভরিয়ে দিয়েছেন। এদিকে কমেন্ট বক্সেও এসেছে অজস্র কমেন্ট। অনেকের ধারণা সোশ্যাল মিডিয়ায় হাজার ধরনের ভিডিওর মধ্যে এই ভিডিওটি একদম সেরা ভিডিও।