বৃষ্টির দিনে খিচুড়ি খাওয়ার চল যেভাবে এলো

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১১:৪৩, বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

ফিচার ডেস্কঃ শীতের আগমনী বার্তায় কেমন যেন বর্ষার সুর।প্রকৃতিতে স্নিগ্ধতার পরশ। আর এমন সময়ে বাঙ্গালির রসনায় একটি নাম জপ করতে থাকে সবাই। বলার অপেক্ষা রাখেনা সেটি হলো 'খিচুড়ি'। খিচুড়ি আর বৃষ্টি যেন বাঙ্গালির কাছে সমার্থক শব্দ হয়ে উঠেছে। কিন্তু বৃষ্টি হলেই এই খিচুড়ি খাওয়ার চল কিভাবে এলো আমাদের মাঝে! কেনই বা আর কোন খাবার নয় বৃষ্টি এলেই আমরা খিচুড়ি খেয়ে থাকি:

বৃষ্টির দিনে বাঙালি পরিবারের খাবার টেবিলে আর কিছু হোক না হোক খিচুড়ি কিন্তু থাকবেই। পরিবারের সবাই মিলে বৃষ্টির দিন উদযাপনে এই খিচুড়ির খাওয়ার চল বহু আগে থেকেই চলে আসছে।

এই খাবারটা কিন্তু মূলত বাউলদের খাবার। তারা গ্রামে গ্রামে ঘুরে মানুষকে গান শুনিয়ে পেতেন অনেক চাল ডাল। এসব চাল-ডাল মিশিয়ে বৃষ্টির দিনে তারা তৈরি করতেন এই সুস্বাদু খাবার। যেহেতু তারা উন্মুক্ত স্থানে রান্না করতেন তাই বৃষ্টির দিনে অল্প সময়ে রান্না সেরে ফেলতেই চাল-ডাল একত্রে মিশিয়ে তৈরি করতেন খিচুড়ি।

এছাড়াও গ্রামে হেঁশেল সাধারণত ঘর থেকে বেশ দুরেই তৈরি করা হতো। তাই বৃষ্টির দিনে বার বার রান্নাঘরে যাতায়াত ছিল বেশি কষ্টকর এছাড়াও বৃষ্টি হলে মাটির চুলাও যেত ভিজে। আলাদা করে ভাত, তরকারি, ভাজাভুজি তৈরি করতে হলে অনেক সময় লেগে যেত তাই সাধারণত চালে ডালে মিলিয়ে তৈরা করা হতো খিচুড়ি। খেতে সুস্বাদু এই খাবার বৃষ্টিতে খাওয়ার রীতি মূলত এভাবেই বাঙালিদের মাঝে তৈরি হয়।

Share This Article

শান্তিতে নোবেল বিজয়ী কে এই আলেস বিলিয়াতস্কি?

আধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন নিরবচ্ছিন্ন গ্রিড পেতে কাজ করছে সরকার : জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী

রাসুলের আদর্শ অনুসরণেই মানবজাতির মুক্তি : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির

সেনা অভ্যুত্থান : ১০ লাখের বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারে

মুক্তিপণ দেওয়ার পরও বাঁচলেন না বাঁচতে পারলেন না সোহেল

বাংলাদেশ,শ্রীলংকা নাকি আমেরিকা: মাথাপিছু ঋণ কার বেশি

বিশ্ববাজারে কমেছে চিনি-মাংস-দুধের দাম, বেড়েছে ধান-গমের : জাতিসংঘ

বিদেশে পাঠানোর নামে কোটি কোটি টাকা হাতিয়েছে চক্রটি

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করায় বিএনপির ৪ নেতাকে নোটিশ

শিক্ষকের পা ছুঁয়ে শ্রদ্ধা জানালেন তথ্যমন্ত্রী