যারা আদা চা খাবেন না

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১১:১১, শনিবার, ১ জুন, ২০২৪, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

আদা আমাদের সবার সুপরিচিত একটি মসলা। আমরা আদা প্রতিদিনেই কিছু না কিছুর সঙ্গে খেয়ে থাকি। অনেকে চায়ের সঙ্গে আদা খেয়ে থাকেন। তবে এ মসলার সব থেকে বেশি ব্যবহার হয়ে থাকে তরকারিতে মানে রান্নার কাজে। আদাতে আছে প্রচুর পরিমাণে ঔষধি গুণ।  ঠান্ডা, গলাব্যথায় আদা-চা বেশ উপকারী।

তবে সবসময় আদা-চা খাওয়া কি ঠিক? আজকে আমরা জানব আদার অপকারিতা নিয়ে।  তবে কিছু ওষুধ আছে, যেগুলোর সঙ্গে আদা সেবনে রয়েছে স্বাস্থ্যঝুঁকি। যেসব ওষুধ খেলে আদা খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। -সূত্র ভারতীয় গণমাধ্যম।

যারা রক্ত পাতলার কারণে ওষুধ (যেমন: ওয়ারফেরিন, অ্যাসপিরিন বা ক্লোপিডোগ্রেল ইত্যাদি) সেবন করেন, আদা তাদের শরীরে রক্তক্ষরণের ঝুঁকি বাড়াতে পারে। তাই এসব ওষুধ সেবনকালে আদা এবং আদা-চা খাওয়া থেকে বিরত থাকা জরুরি।

এছাড়াও উচ্চ রক্তচাপের ওষুধের সঙ্গে, বিশেষ করে ক্যালসিয়াম চ্যানেল ব্লকার, যেমন- অ্যামলোডিপিনের সঙ্গে আদা সেবন করলে রক্তচাপ বেশি কমে যেতে পারে। পাশাপাশি ব্যথানাশক যেমন: ডাইক্লোফেনাক বা ন্যাপ্রোক্সেন-জাতীয় ওষুধের সঙ্গে আদা খেলেও রক্তপাতের আশঙ্কা বেড়ে যায়।

গর্ভবস্থায় আদা খাওয়া উচিত না- এতে প্রিম্যাচিউর বাচ্চা হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। আদা চা বেশি খেলে অনিদ্রা দেখা দিতে পারে। যারা ডায়াবেটিস ও রক্তচাপের ওষুধ খেয়ে থাকেন তাদের আদা না খাওয়াই ভালো। আদা বেশি পরিমানে খেলে ডায়রিয়া ও পেট ব্যথা বাড়তে পারে। আদা বেশি খেলে হৃদযন্ত্রের গতি বেড়ে যায়। অতিরিক্ত আদা খেলে ত্বকের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

বিষয়ঃ গবেষণা

Share This Article

এ যুগের রাজাকারদের পরিণতি ওই যুগের রাজাকারদের মতই হবে : শিক্ষামন্ত্রী

যাঁরা ‘আমি রাজাকার’ বলেন, তাঁদের শেষ দেখে ছাড়বে ছাত্রলীগ

কোটা আন্দোলনকারীদের হটাতে অ্যাকশনে পুলিশ

পারলে সশরীরের ঢাকায় যেতাম, আন্দোলন নিয়ে কবীর সুমন

আর্জেন্টিনার ইতিহাস গড়া জয়, কোপার শিরোপা মেসিদের

ঢাবি হলের কক্ষে কক্ষে কোটাব্যবস্থা নিয়ে প্রচারপত্র দিলেন ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতারা

শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুকন্যাকে কটূক্তি করেনি, কেউ শিখিয়ে দিয়েছে

জামিন পেলেন সেই সেই মিল্টন সমাদ্দার

প্রাণহানির প্রতিটি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত হবে : প্রধানমন্ত্রী

ছাত্রলীগের উপর বিনা উসকানিতে হামলা চালানো হয়েছে : ওবায়দুল কাদের