সাকিবের প্রত্যাবর্তনে সিরিজ ড্র করতে চায় বাংলাদেশ

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১০:০৩, শনিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
ফাইল ফটো
ফাইল ফটো

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের প্রত্যাবর্তনে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে অধিনায়ক মোমিনুল হক বলেছেন, এর ফলে দ্বিতীয় ও চূড়ান্ত টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে অনুপ্রেরণা পাবে বাংলাদেশ। সাকিবের প্রত্যাবর্তন দলীয় কম্বিনেশনে সহায়তা করবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

 

সফরকারী পাকিস্তানের কাছে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে হারার পর দুই টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচেও ৮ উইকেটে পরাজিত হয় বাংলাদেশ। যদিও প্রথম ইনিংসে ৪৪ রানের লিড নিয়েছিল স্বাগতিকরা।

তবে সবগুলো ম্যাচেই দলের বাইরে ছিলেন সাকিব আল হাসান। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে পড়েন টাইগার অলরাউন্ডার। অবশ্য টি-টোয়েন্টি সিরিজে না থাকলেও প্রথম টেস্ট ম্যাচের স্কোয়াডভুক্ত ছিলেন সাকিব। কিন্তু ফিটনেস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়ায় শেষ মুহূর্তে বাদ পড়েন তিনি।


দলের জন্য এই অল রাউন্ডারের গুরুত্ব তুলে ধরে মোমিনুল বলেন, ‘সাকিব দলে থাকলে অধিনায়ক হিসেবে আমার কাছে সবকিছু সহজ হয়ে যায়। এই মুহূর্তেও তার কারণে সবকিছু সহজ হয়ে গেছে। আপনারা জানেন, তিনি এমন এক খেলোয়াড়- যার মধ্যে দুটি গুণ সমানভাবে বিদ্যমান। তিনি আমাদের এমন একটি কম্বিনেশন পাইয়ে দিতে পারেন, যাতে আমাদের খেলাটা অনেক সহজ হয়ে যায়। এখন আমরা চার বোলার ও সাত ব্যাটারের ঐতিহ্যগত কম্বিনেশনে ফিরতে পারব।’

সেইসঙ্গে ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদের ফিটনেস রিপোর্টের জন্যও অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন মোমিনুল। প্রথম টেস্টে খুব একটা কার্যকরী হতে পারেনি বাংলাদেশের পেস বোলিং। পাকিস্তান যেখানে ১৬ উইকেট দখল করেছে, সেখানে মাত্র ২টি উইকেট লাভ করেছে বাংলাদেশের পেস ইউনিট। মোমিনুল বলেন, চট্টগ্রামের পিচ তাসকিনের জোরালো বোলিংকে মিস করেছে।

টাইগার টেস্ট অধিনায়ক বলেন, ‘আগামীকাল (শনিবার) টসের আগে আমরা কন্ডিশন পর্যবেক্ষণ করব। তবে যেহেতু সামনে নিউজিল্যান্ড সিরিজ আছে, তাই তাসকিনকে নিয়ে খুব একটা ঝুঁকি নিতে চাই না।’

এদিকে, প্রথম টেস্টে দুই ইনিংসেই ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশের টপ অর্ডার। দুই ইনিংসে যথাক্রমে ৪৯ ও ২৫ রানে চার উইকেট হারানোটা ম্যাচ হারের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ ছিল। পাকিস্তানের বিপক্ষে হারের গণ্ডি থেকে বের হতে হলে স্বাগতিক দলকে পরাজয় থেকে শিক্ষা নিতে হবে।

মোমিনুল বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটের প্রথম ঘণ্টাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দুর্ভাগ্যবশত: প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসেই প্রথম ঘণ্টাতেই আমাদের টপ অর্ডাররা উইকেট বিলিয়ে এসেছেন। আমার মনে হয়, ম্যাচের প্রথম ঘণ্টার জন্য সবাইকে এখন সচেতন হতে হবে। আমাদের মূল শক্তির জায়গাটা হচ্ছে ব্যাটিং। পাকিস্তানী বোলারদের চাপে ফেলতে হলে অন্তত ছয়টা সেশন আমাদের ব্যাটিং করতে হবে। আমরা ম্যাচ জয়ের জন্য খেলতে এসেছি। তাই আশা করছি, আরো শক্তি নিয়ে আমরা ম্যাচে ফিরতে পারব।’

Share This Article


রাসেল ও নারাইনকে পেয়ে আরও শক্তিশালী কুমিল্লা

টিভিতে আজকের খেলা

মায়ের অসুস্থতা, রাজকোট টেস্ট থেকে আশ্বিনের বিরতি

টি-টোয়েন্টিতে ঠাঁই হয়নি মিরাজের, কারণ জানালেন নির্বাচক

হাজারতম ম্যাচে দলকে জিতিয়ে রাঙালেন রোনালদো

জ্যাকসের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে রেকর্ড সংগ্রহ কুমিল্লার

বাংলাদেশের তিন ফরম্যাটে অধিনায়ক শান্ত

বাদ পড়লেন নান্নু-বাশার, প্রধান নির্বাচক লিপু

সিলেটে আসছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল, খেলবে ৩টি ম্যাচ

ম্যাক্সওয়েলের পঞ্চম সেঞ্চুরিতে রানের পাহাড়ে অস্ট্রেলিয়া

বিপিএলের ৩ পর্ব শেষে ব্যাট হাতে দেশিদের দাপট

বাংলাদেশ ছেড়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তে আমার এখনও আক্ষেপ হয়: ডেভ হোয়াটমোর