প্রথমবারের মতো উত্তরা থেকে আগারগাঁও ঘুরে গেলো মেট্রোরেল

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১১:৩৬, রবিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২১, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

রাজধানীর উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চলল মেট্রোরেল। সাড়ে তিন মাস আগে টেস্ট রান শুরু হলেও এতদিন ট্রেন চলাচল দিয়াবাড়ি থেকে কাছাকাছি চার-পাঁচটি স্টেশনে সীমাবদ্ধ ছিল। তবে এবার সেই সংখ্যা বেড়ে ৯- এ পৌঁছাতে যাচ্ছে। 

রাজধানীর উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চলল মেট্রোরেল।  রোববার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে রেলটি আগারগাঁও স্টেশনে এসে থামে। কিছুক্ষণ অপেক্ষার পরে ট্রেনটি আবার উত্তরায় ফিরবে।

পরীক্ষামূলক চলাচলের অংশ হিসেবে মেট্রোরেল এই প্রথমবারের মতো এতখানি দূরত্বে চলাচল করল।

এর আগে মিরপুর-১০ নম্বর পর্যন্ত মেট্রোরেলের পরীক্ষামূলক চলাচল সীমাবদ্ধ ছিল।  পরীক্ষামূলক বলে আজও মেট্রোরেলে কোনো যাত্রী পরিবহণ করা হয়নি।  

মেট্রোরেলের চলাচল দেখতে উৎসুক মানুষের ভিড় জমে দিয়াবাড়ি ও আগাওগাঁওয়ে।

জানা গেছে, সকাল ৯টা ৩৯ মিনিটে পরীক্ষামূলকভাবে এ রুটে মেট্রোরেল চলাচল শুরু হয়।

এর আগে পারফরম্যান্স টেস্টের অংশ হিসেবে দিয়াবাড়ীর উত্তরা সেন্টার, উত্তরা সাউথ, পল্লবী, মিরপুর-১১ হয়ে মিরপুর-১০ নম্বর স্টেশন পর্যন্ত ট্রেন চালানো হয়েছিল। যাত্রীবিহীন অবস্থায় আজ শেওড়াপাড়া ও কাজীপাড়া হয়ে আগারগাঁও পর্যন্ত চললো।

আগামী বছরের ডিসেম্বরে দিয়াবাড়ী থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত পৌনে ১২ কিলোমিটার অংশে ট্রেন চলাচল শুরু হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

ডিএমটিসিএল জানায়, ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত আট সেট ট্রেন এসেছে। ১ ডিসেম্বর নবম ও দশম ট্রেন সেট জাপান থেকে জাহাজে বাংলাদেশের উদ্দেশে যাত্রা করেছে। প্রথম ট্রেন সেট গত ২৩ এপ্রিল ঢাকায় আনার পর ৯ মে প্রথমবারের মতো দিয়াবাড়ীতে ডিপোতে চালিয়ে দেখা হয়। ১৯ রকমের টেস্ট শেষে দুই দফা ভায়াডাক্টের ওপর পরীক্ষামূলক চালিয়ে গত ২৩ অক্টোবর পারফরম্যান্স টেস্ট শুরু হয়।

রাস্তার মাঝ বরাবর পিয়ারের (খুঁটি) ওপর নির্মিত ভায়াডাক্টে (উড়ালপথ) বসানো রেললাইনে চলবে মেট্রোরেলের ট্রেন। এমআরটি-৬ লাইনে ২৪ সেট ট্রেন চলবে। ঘণ্টায় ১১০ কিলোমিটার গতিতে চলতে সক্ষম এসব ট্রেনে ছয়টি করে বগি আছে। বিদ্যুৎচালিত এ ট্রেনের সামনের ও পেছনের বগিতে থাকবে ইঞ্জিন। ছয় বগিতে ৩১২ জন যাত্রী বসার ব্যবস্থা থাকবে। তবে দাঁড়িয়েই বেশি যাত্রী চড়বে। প্রায় দুই হাজার দাঁড়ানো যাত্রীসহ ট্রেনে সর্বোচ্চ দুই হাজার ৩০৮ জন যাত্রী চড়তে পারবেন।


 

বিষয়ঃ বাংলাদেশ

Share This Article