পাতাল রেল: ঢাকায় কমবে যানজট ও জনজট!

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ বিকাল ০৪:০৩, শনিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০২১, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
পাতাল রেল
পাতাল রেল

রাজধানীকে পুরোপুরি যানজট মুক্ত করতে এবার ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় মাটির নিচে রেলওয়ে নেটওয়ার্ক নির্মাণ করার পরিকল্পনা করছে সরকার। এতে কমবে যানজট ও জনজট। বাঁচবে কর্মঘণ্টা, দুর্ভোগ থেকেও রেহাই মিলবে কর্মজীবী মানুষের।

জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে পাতালরেলের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ শুরু করে। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে ঢাকা শহরের প্রায় ৮০ লাখ কর্মজীবী মানুষের অর্ধেকই মাটির নিচ দিয়ে চলাচল করতে পারবেন।

জানা যায়, সড়কপথে যেখানে ঘণ্টায় ১০ হাজার যাত্রী চলাচল করতে পারেন, সেখানে পাতাল রেলে ঘণ্টায় ৬০ হাজার যাত্রী চলাচল করতে পারবেন। উড়াল সেতুর সম্ভাব্য অর্থনৈতিক আয়ুষ্কাল ৫০ থেকে ৭৫ বছর হলেও পাতাল রেলের স্থায়িত্বকাল প্রায় ১০০ থেকে ১২৫ বছর হবে।

সেতু কর্তৃপক্ষ বলছে, ২০৩০ সালের মধ্যে পাতাল রেলের চারটি রুটের নির্মাণ কাজ শেষ হবে। সাবওয়ের ১১টি লাইনের মধ্যে চারটি লাইনের কাজ শেষ হবে ২০৩০ সালের মধ্যে।

রুটগুলো হলো টঙ্গী থেকে কেরানিগঞ্জের ঝিলমিল প্রজেক্ট, সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে কামরাঙ্গীর চর, উত্তরা ১৩ সেক্টর থেকে নারায়ণগঞ্জ এবং গাবতলী থেকে মাস্তুল পর্যন্ত। বাকি সাতটি লাইনের কাজ শেষ হবে ২০৪০ সালের মধ্যে।

Share This Article


রমজানে সুলভ মূল্যে দুধ, ডিম, মাংস পেল প্রায় ৬ লাখ মানুষ

ব্রাজিলের জার্সি পেলেন প্রধানমন্ত্রী

ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ভিসা নিষেধাজ্ঞায় ইউনুসের হাত!

চিত্রপরিচালক সোহানুর রহমান সোহানের মেয়ের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

করছাড়ের সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসছে এনবিআর

১৮ জেলায় ৬০ কিমি বেগে ঝড় হতে পারে

ফাঁকা হয়ে আসছে ঢাকা

ঈদযাত্রায় স্বস্তি আনতে ১৫ বছরে সরকারের যত উদ্যোগ

মহাখালী বাস টার্মিনালে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত অভিযান চালাবে বিআরটিএ

প্রথমবারের মতো ঈদে সংবাদপত্রে ৬ দিনের ছুটি

‘২০৩০ সালের মধ্যে সবার জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার’