বাংলাদেশ রেলওয়েতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে সুইজারল্যান্ড

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সন্ধ্যা ০৬:৩১, বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

বাংলাদেশ রেলওয়েতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে সুইজারল্যান্ড।

বাংলাদেশ রেলওয়েতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে সুইজারল্যান্ড।

দেশে নিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি চুয়ার্ডের সঙ্গে রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজনের এক সাক্ষাত শেষে এ তথ্য জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) রেলভবনে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি চুয়ার্ডের সঙ্গে রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজনের এক সাক্ষাত শেষে এ তথ্য জানানো হয়।

এ সময় রেলপথ মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ রেলওয়েকে ঢেলে সাজান হচ্ছে। কারখানাগুলোকে আধুনিক করা হচ্ছে, নতুন ইঞ্জিন এবং কোচ আনা হচ্ছে, স্টেশনগুলোকে সংস্কার করা হচ্ছে। একটি ভারসাম্যপূর্ণ যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ২০১১ সালে আলাদা মন্ত্রণালয় গঠন করে দিয়েছেন। তখন থেকেই রেল খাতের উন্নয়নে বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে।  

তিনি বলেন, বাংলাদেশের রেল ব্যবস্থা যমুনা নদী দ্বারা বিভক্ত। পশ্চিমাঞ্চলে ব্রডগেজ এবং পূর্বাঞ্চলে মিটারগেজ দ্বারা সীমাবদ্ধ। আমরা পুরা রেল ব্যবস্থাকে একটি মাধ্যম অর্থাৎ ব্রডগেজে নিয়ে আসার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। পর্যায়ক্রমে সকল সিঙ্গেল লাইন কে ডুয়েলগেজে রূপান্তর করা হবে। বিভিন্ন বন্দরের সঙ্গে রেল কানেকশন করা হচ্ছে। ভারতের সঙ্গে স্বাধীনতা পূর্বকালে আটটি ইন্টারচেঞ্জ পয়েন্ট ছিল। বর্তমানে পাঁচটি চালু করা হয়েছে বাকি তিনটি চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। 

মন্ত্রী আরও বলেন, গত সপ্তাহেই ইউরোপের জার্মানি, ফ্রান্স ও স্পেন ভ্রমণ করে এসেছি। ইউরোপের প্রযুক্তি আমাদের রেলওয়েতে কাজে লাগাতে চাই । সুইজারল্যান্ড আমাদের দেশে প্রযুক্তিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করতে পারে। সে ক্ষেত্রে উভয় দেশ একটি সমঝোতা স্মারক সই করে ক্ষেত্রগুলো চিহ্নিত করে এগিয়ে যেতে পারবে।

এ সময় রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার, অতিরিক্ত সচিব ভূবন চন্দ্র বিশ্বাস, সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সংস্কৃতি বিষয়ক কাউন্সিলর থমাস বমগার্টনার উপস্থিত ছিলেন।

Share This Article