কাদের উস্কানিতে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নামছে ?

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ বিকাল ০৪:৩৬, শনিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
কাদের
কাদের

নিরাপদ সড়কের দাবিতে কয়েকদিন ধরে শিক্ষার্থীরা যে আন্দোলন করছেন তাতে রাজনৈতিক উস্কানি দেখছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি সন্দেহ প্রকাশ করে বলেন, শিক্ষার্থীদের কাজ পড়ালেখা করা, রাস্তায় আন্দোলন করা নয়। যেহেতু এখানে শিক্ষার্থীরা জড়িত তাহলে বুঝতে হবে এখানে কোনো তৃতীয় পক্ষের ইন্ধন রয়েছে।

চলমান ছাত্র আন্দোলনের ভিডিও ফুটেজ দেখে এ উস্কানিদাতাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথায় জানিয়েছেন ওবায়েদুল কাদের।

শনিবার সকালে রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ে সড়ক নিরাপত্তামূলক রোড শোতে অংশ নিয়ে এমন কথা বলেন তিনি। সড়ক নিরাপত্তা ও গণসচেতনতা বৃদ্ধিমূলক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এই রোড শো’র আয়োজন করা হয়।

সরকার বাসের ভাড়া বাড়ানোর পর থেকে শিক্ষার্থীরা আগের মত অর্ধেক ভাড়া দেওয়ার দাবিতে আন্দোলন করে আসছিল। প্রতিদিনই তারা বিভিন্ন এলাকায় সড়ক আটকে বিক্ষোভ দেখায়।

এর মধ্যে গত ২৪ নভেম্বর সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় নটরডেম কলেজের এক শিক্ষার্থী এবং পরে রামপুরায় বাসের চাপায় এক এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত হওয়ায় শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ আরও বাড়ে।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে ঢাকা পরিবহন মালিক সমিতি শিক্ষার্থীদের ‘হাফ’ ভাড়ার দাবি মেনে নেওয়ার ঘোষণা দেয়। কিন্তু তা প্রত্যাখ্যান করে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন নয় দফা দাবিতে আন্দোলনে থাকা শিক্ষার্থীদের একটি দল। তাদের দাবি, কেবল ঢাকা মহানগরে নয়, ‘হাফ’ ভাড়া চালু করতে হবে সারা দেশে এবং সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টার বদলে তা হতে হবে ২৪ ঘণ্টার জন্য।

দাবি আদায়ে গত বুধবার সকালে ঢাকার রামপুরায় বিটিভি ভবনের সামনের সড়কে অবস্থান দিয়ে বিক্ষোভ দেখায় শিক্ষার্থীরা। এছাড়া আজ লাল কার্ড দেখানোর কর্মসূচির ঘোষণা করে শিক্ষার্থীরা।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘রাজনৈতিক দল থেকে শিক্ষার্থীদের উস্কানি দেওয়া হয়। সেটার প্রমাণ আমাদের কাছে আছে। এর ভিডিও ফুটেজ আছে। এটা একটা রাজনৈতিক দলের মহানগরের মহিলা নেত্রী রামপুরায় রাস্তায় নেমে ছাত্রছাত্রীদের উস্কানি দিচ্ছেন, স্কুলের ড্রেস পরে। তারপরেও এই আন্দোলনটা একটি বিশেষ এলাকায় সীমাবদ্ধ রয়েছে। এটা রামপুরা এলাকাতেই শুধু হচ্ছে। ছাত্রছাত্রীরা যখন আন্দোলন শেষে লেখাপড়ায় মনোনিবেশ করছে তখনি রাজনৈতিক উস্কানি দিচ্ছে একটি মহল।

এ সময় কুয়েটের প্রফেসর ড. মো. সেলিম হোসেনের মৃত্যুতে অস্বাভাবিকতা পেলে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানান সেতুমন্ত্রী।

Share This Article


বিএনপি এখন আবোলতাবোল বলছে: আইনমন্ত্রী

ঈদ ঘিরে জমজমাট ভৈরবের জুতাশিল্প, ২০০ কোটি টাকার বাণিজ্যের সম্ভাবনা

উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে ট্রেনযাত্রা

পাহাড়ে ‘কেএনএফ’ সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আসলে কারা?

মানুষের স্বাস্থ্যের অধিকার উপলব্ধি করা গুরুত্বপূর্ণ: সায়মা ওয়াজেদ

মেট্রো রেলের ভাড়ায় ভ্যাট বসানোর কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি : ওবায়দুল কাদের

ঈদের ফিরতি যাত্রার ১৫ এপ্রিলের টিকিট বিক্রি শুরু

সমর্থন অব্যাহত রাখার অঙ্গীকার জানিয়ে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্টকে চিঠি প্রধানমন্ত্রীর

এলএনজি ভোজ্যতেল কেনাসহ ১০ প্রস্তাব অনুমোদন, ব্যয় ৩১১২ কোটি

কমলো এলপি গ্যাসের দাম

১৯২ রানের বড় হারে সিরিজ শেষ করল বাংলাদেশ

রূপপুরে আরেকটি পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের জন্য রোসাটমের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান