ঈদে এক মাসের ‘বাসা ভাড়া মওকুফ’, বাড়িওয়ালার অনন্য নজির

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ বিকাল ০৫:২০, সোমবার, ১ এপ্রিল, ২০২৪, ১৮ চৈত্র ১৪৩১

 ‘আমার বাড়ি ওয়ালার পক্ষ থেকে ঈদ উপহার....আমি আমার ঢাকা শহরের এই ছোট্ট জীবনে কেউ কখনো এমন উপহার পেয়েছেন কিনা জানি না এবং শুনিনি কখনো, আমি অন্তত পাইনি।

বছর পেরোলেই যখন নিয়ম করে বাসা ভাড়া বাড়ানো হয়, সেই স্রোতের বিপরীতে গা ভাসালেন ঢাকার এক বাড়িওয়ালা। দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় আসন্ন ঈদে চাপ কমাতে সব ভাড়াটিয়ার রমজান মাসের বাসা ভাড়া মওকুফ করেছেন রাজধানীর মিরপুর এলাকার রুপালি হাউজিংয়ের ঐ বাড়িওয়ালা। সেই অর্থ ঐসব পরিবারকে ঈদ উপহার হিসেবে দিয়ে অনন্য নজির স্থাপন তিনি।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছাড়িয়ে পড়েছে এমন একটি পোস্ট।


রুপালি হাউজিংয়ের ৬১ নম্বর বাড়িতে ভাড়া থাকেন আলিমুর রহমান সুফাল। সোমবার তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে বিষয়টি জানালে মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয় পোস্টটি।


বাড়িওয়ালা থেকে পাঠানো চিঠিটি তার আইডিতে শেয়ার করে লেখেন, ‘আমার বাড়ি ওয়ালার পক্ষ থেকে ঈদ উপহার....আমি আমার ঢাকা শহরের এই ছোট্ট জীবনে কেউ কখনো এমন উপহার পেয়েছেন কিনা জানি না এবং শুনিনি কখনো, আমি অন্তত পাইনি। সম্পদের পাশাপাশি সুন্দর একটা আত্মা থাকা টা ও জরুরি একজন প্রকৃত মানুষ হওয়ার জন্য। আল্লাহ উনাকে নেক হায়াত এবং দুনিয়া ও আখিরাতে উত্তম প্রতিদান দান করুন।’


আলিমুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, আমি একজন ভাড়াটিয়া হিসেবে আমার আবেগ প্রকাশ করেছি মাত্র। এদিকে বাড়ির মালিকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাইলে তিনি বিষয়টি গোপন রাখতেই পছন্দ করেন বলে জানিয়েছেন।


জানা যায়, এই বাড়িওয়ালার এই হাউজিংয়ে দুইটা বাড়ি আছে এবং সবার জন্যই এই উপহার দিয়েছেন।


আলিমুর রহমানের করা সেই পোস্টের কমেন্টে বাড়িওয়ালার জন্য প্রশংসার জোয়ার বয়ে গেলেও অনেকেই অন্য বাড়ির মালিকদের নিয়ে নিজেদের তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা জানান।


নাজমুল হাসান নামে একজন লিখেন, ‌‘আলহামদুলিল্লাহ। এরকম কখনো শুনি নাই ভাই। ওনার জন্য দোয়া রইল।’


মো. মঞ্জুর মুর্শেদ নামে একজন লেখেন, কোথায় এই হাউজিং ? বাসা কি আর খালি আছে?


হিমা রুজারিও নামে একজন মন্তব্য করে বলেন, ‌‘ঈশ্বর উনার এবং উনার পরিবারের মঙ্গল করুন।ভাইয়া পোস্টটা কি শেয়ার দিতে পারি? কারণ এমন দৃষ্টান্ত সহজে দেখা যায় না।’


অন্তু মুজাহিদ নামে একজন পোস্টটি শেয়ার করে তার টাইমলাইনে লেখেন, ‌‘হে আল্লাহ, রাজধানীর সকল বাড়িওয়ালাকে রাতারাতি নিচের এই বাড়িওয়ালার মতো দারাজ দিলের মালিক বানিয়ে দাও।’


সিজ্জিল মমতাজ নামে একজন আক্ষেপ প্রকাশ করে লেখেন, ‌‘ঢাকা শহরের বাড়িওয়ালারা ভাড়াটিয়াকে মানুষ মনে করে না। দুই বছর পর পর ভাড়া বাড়ায়। ৫ তারিখের মধ্যে ভাড়া সার্ভিস চার্জ না দিলে পাঁচবার লোক পাঠায়। ৯৯ ভাগ অমানুষের মধ্যে একজন মানুষ আছে বলে এখনো পৃথিবীটা সুন্দর।’

বিষয়ঃ বাংলাদেশ

Share This Article


চুয়াডাঙ্গায় তীব্র তাপদাহ: হিট এলার্ট জারি

ধান শুকানো নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সংঘর্ষ, আহত অর্ধশত

জ্যান্ত কই গলায় ঢুকে কৃষকের মৃত্যু

ফরিদপুরে দুর্ঘটনায় নিহতদের ৪ জন একই পরিবারের

স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে ঢাকায় ফেরার পথে শেষ পুরো পরিবার

গ্রাহকের আড়াই কোটি টাকা নিয়ে ব্যাংক ব্যবস্থাপক উধাও

১৫০ উপজেলায় ১৮৯১ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

১৭ এপ্রিল তৃতীয় ধাপের উপজেলা ভোটের তফসিল

হাতিরঝিলে মানসিক ভারসাম্যহীন যুবকের মরদেহ উদ্ধার

দেশের যেসব অঞ্চলে হতে পারে বৃষ্টি

দেশের পথে ‘এমভি আবদুল্লাহ’, চার দেশের নৌসেনারা দিচ্ছে গার্ড

১৫ রোজার পরেই দ্রব্যমূল্য কমে গিয়েছিল বললেন নানক