মিয়ানমারে নারী-শিশুসহ কমপক্ষে ৩০ জনকে হত্যা

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ বিকাল ০৩:১৩, রবিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ১১ পৌষ ১৪২৮

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মিয়ানমারে নারী ও শিশুসহ ৩০ জনের বেশি মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। দেশটির কায়া প্রদেশে সেনা ও বিদ্রোহীদের মধ্যে সংঘর্ষের সময় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় মানবাধিকার গোষ্ঠী, গণমাধ্যম ও একজন বাসিন্দার বরাত দিয়ে শনিবার আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এসব তথ্য জানিয়েছে।

কারেনি মানবাধিকার সংগঠন জানিয়েছে, শনিবার তারা হাপ্রুসো শহরের মো সো গ্রামের কাছে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হাতে নিহত বৃদ্ধ, নারী, শিশুসহ অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত মানুষের পোড়া মৃতদেহ খুঁজে পেয়েছে। সংগঠনটি তাদের ফেসবুক পেজে এক বার্তায় বলেছে, ‘আমরা এমন অমানবিক ও নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানাই। এই ঘটনায় মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে।’

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সেনাবাহিনীর বরাত দিয়ে বলেছে, সেনাবাহিনী ওই গ্রামে বিরোধী সশস্ত্র বাহিনীর বেশ কয়েকজন ‘অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী’কে গুলি করে হত্যা করেছে। অস্ত্রধারীরা সাতটি গাড়িতে ছিলেন এবং সামরিক বাহিনীর নির্দেশের পরও তারা থামেননি।

মানবাধিকার গোষ্ঠী এবং স্থানীয় গণমাধ্যমের শেয়ার করা ছবিতে পোড়া লাশ দেখা গেছে। মিয়ানমারের জান্তাবিরোধী বেসামরিক মিলিশিয়াদের অন্যতম বড় বাহিনী ‘কারেনি ন্যাশনাল ডিফেন্স ফোর্স’ বলেছে, নিহতরা তাদের সদস্য নন, বরং সহিংসতা থেকে বাঁচতে আশ্রয়ের খোঁজে থাকা সাধারণ মানুষ।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কারেনি ফোর্সের এক কমান্ডার রয়টার্সকে বলেন, ‘নারী-শিশুসহ বিভিন্ন আকৃতির মানুষের মৃতদেহ দেখে আমরা স্তম্ভিত হয়েছি।’

এক গ্রামবাসী বলেন, শুক্রবার রাতে আগুন লাগার বিষয়টি তিনি টের পেয়েছিলেন। কিন্তু গোলাগুলি চলছিল বলে কী হচ্ছে তা দেখতে তিনি ঘটনাস্থলে যেতে পারেননি।

ফোনে রয়টার্সকে তিনি বলেন, ‘আজ (শনিবার) সকালে ঘটনা দেখতে গিয়েছিলাম। গিয়ে দেখি পুড়ে যাওয়া মৃতদেহ। শিশু, নারীদের কাপড় চারপাশে ছড়িয়ে আছে।’

প্রসঙ্গত, গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের অং সান সু চির নেতৃত্বাধীন বেসামরিক সরকারকে অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে ক্ষমতাচ্যুত করে সামরিক বাহিনী। এরপর থেকেই দেশটিতে সামরিক জান্তাবিরোধী বিক্ষোভ-প্রতিবাদ চলে আসছে।

Share This Article


ঘোড়া জবাই করে শিশুদের খাদ্য জোগাচ্ছে ফিলিস্তিনিরা

ইয়েমেনে নতুন করে ১৮ লক্ষ্যবস্তুতে হামলা যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যের

অনুমতি ছাড়া হজ করলে জরিমানা, হতে পারে জেলও

গোপনে না করলে কারাগারেই সমাহিত করা হবে নাভালনিকে: মাকে আল্টিমেটাম

আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা

আসামে মুসলিম বিয়ে ও তালাক আইন বাতিল

আমি মালালা নই যে দেশ ছেড়ে পালাব: ইয়ানা মীর

ইসরায়েলি হামলায় গাজার একই বাড়ির ২৩ জন নিহত

ফলাফল চ্যালেঞ্জ করে এবার সুপ্রিম কোর্টে ইমরানের পিটিআই

গাজা নিয়ে ইসরায়েলের নতুন পরিকল্পনা প্রকাশ

এক শর্তে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রস্তাব জান্তা সরকারের

তিন বছরে গড়াল রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ

হজ নিয়ে কঠোর সিদ্ধান্ত সৌদির