মোদির ছবি বিতর্ক : পিটিশন ও জরিমানা !

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ বিকাল ০৫:২৪, মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২১, ৬ পৌষ ১৪২৮
ভারতের করোনা টিকার সনদে মোদির ছবি
ভারতের করোনা টিকার সনদে মোদির ছবি

 

ভারতে কোভিড-১৯ টিকা সনদে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি থাকার বিষয়টি ভালো লাগেনি দেশটির একজন নাগরিকের। তাই কেরালার হাইকোর্টে একটি পিটিশন দায়ের করেছিলেন।

 

কিন্তু কেরালা হাইকোর্ট সেই পিটিশন খারিজ করে দিয়েছেন। উল্টো  ‘তুচ্ছ’ বিষয় নিয়ে পিটিশন করায় পিটিশনকারীকে ১ লাখ রুপি জরিমানাও করেছেন। আগামী ছয় সপ্তাহের মধ্যে জরিমানা দিতে না পারলে তার সম্পত্তি বেচে অর্থ সংগ্রহের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে।

আর বিষয়টি নিয়ে বেশ তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে নেট দুনিয়ায়।

জানা গেছে, ২১ ডিসেম্বর এই মামলার শুনানিতে বিচারপতি পি ভি কুনিকৃষ্ণন এটিকে ‘তুচ্ছ’ কারণে পিটিশন বলে মন্তব্য করেছেন। আদালতের যুক্তি হচ্ছে,  তিনি একটি দলের থেকে নির্বাচিত হলেও প্রধানমন্ত্রীর পদটি রাষ্ট্রীয়। তাই তার পদটি প্রত্যেক নাগরিকের কাছে সম্মানজনক হতে হবে। দলীয় দৃষ্টিতে দেখা চলবে না। আদালতে যখন গুরুত্বপূর্ণ সব মামলা জমা পড়ে রয়েছে, তখন এ ধরনের অপ্রয়োজনীয় পিটিশনকে উৎসাহিত করা যায় না।

আদালতে পিটিশনটি দায়ের করেছিলেন পিটার মায়ালিপারম্পিল নামে এক তথ্য অধিকারকর্মী। তার অভিযোগ, বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে টিকা নিতে যখন জনগণকেই অর্থ দিতে হয়, তখন সেই সনদে প্রধানমন্ত্রী মোদীর ছবি থাকা মৌলিক অধিকার লঙ্ঘনের সামিল।

Share This Article