তারা নারীদের গোপন দৃশ্য ধারণ করেন চিকিৎসকের ছদ্মবেশে

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ রাত ০৮:০৭, শুক্রবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ২ পৌষ ১৪২৮

অনলাইন ডেস্ক:
স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের ছদ্মবেশে ফাঁদে ফেলে ওয়েবক্যামের মাধ্যমে নারীদের গোপন দৃশ্য ধারণ করতেন এই প্রতারক। একটি বাড়িতে শুক্রবার চালিয়ে ওই প্রচারককে আটক করেছে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে তিনি অন্তত চারশ’ নারীর গোপন দৃশ্য ধারণ করেছিলেন। বার্তা সংস্থা এএফপি শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

পুলিশ জানায়, ইতালির দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর বারির এক বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৪০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির কাছ থেকে বেশ কয়েকটি স্মার্টফোন ও মেমোরি কার্ড উদ্ধার করে পুলিশ। বেশ কয়েকজন ভুক্তভোগীর কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়ার পর ওই ব্যক্তির ফোনে আড়ি পেতে তার সন্ধান পায়  পুলিশ।

এ ব্যাপারে পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, দেশের বিভিন্ন ক্লিনিকে যেসব নারীরা পরীক্ষার জন্য তাদের সোয়াব দিতেন, সেখান থেকে তথ্য চুরি করতেন ওই ব্যক্তি। এরপর ওই নারীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের বোঝাতেন যে, তাদের ‘বিভিন্ন ধরনের ভ্যাজাইন্যাল সংক্রমণ’ হয়েছে। এরপর অনলাইনে পরীক্ষার নাম করে তাদের ওয়েবক্যামের সামনে আসতে প্রলুব্ধ করতেন। এভাবে ইতালির অন্তত চারশ’ নারীকে ফাঁদে ফেলেছেন তিনি।

স্থানীয় গণমাধ্যম রিপাবলিকা ডেইলিকে এক ভুক্তভোগী বলেন, ওই ব্যক্তি নিজেকে একজন চিকিৎসক হিসেবে পরিচয় দিয়েছিলেন। তিনি আমার ব্যক্তিগত কিছু তথ্যও জানতেন। তিনি আমাকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন যে আমি সম্প্রতি কোনো গাইনি পরীক্ষা করিয়েছি কী না।  এরপর তিনি একের পর আমাকে ব্যক্তিগত প্রশ্ন করতে থাকেন। এরপর তিনি আমাকে জুমে ভিডিও কলের মাধ্যমে পরীক্ষা করে নিশ্চিত হওয়ার জন্য আমার গোপনাঙ্গ দেখতে চান।

এই ঘটনায় তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Share This Article