মহামারির মধ্যেও বাংলাদেশ হয়ে উঠেছে বিশ্ব বিনিয়োগের তীর্থস্থান

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১০:৪৬, মঙ্গলবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
লাল সবুজের মহোৎসব
লাল সবুজের মহোৎসব

নিজস্ব প্রতিবেদক: বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশের স্বপ্ন তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে আজ বাস্তব হয়ে ধরা দিয়েছে। এমনকী করোনা মহামারীর আঘাতে, বিশ্বের শক্তিশালী অর্থনীতির দেশগুলো যখন মন্দায় ধুঁকছে, তখন বাংলাদেশের অর্থনীতি আরো বলীয়ান হয়ে উঠেছে। দেশজুড়ে একশ’ বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে বিশ্ব উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগের তীর্থস্থানে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ।

এফবিসিসিআই আয়োজিত ১৬ দিনব্যাপী “বিজয়ের ৫০ বছর: লাল সবুজের মহোৎসব” এর ১৩তম দিনের অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মোরশেদ আলম। 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশ ৫০ বছরের যাত্রায় এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। মাছ, ফল, সবজি উৎপাদনে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দেশগুলোর একটি বাংলাদেশ। এ সফলতা এসেছে প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় নেতৃত্বের কারণে।

রাজধানীর হাতিরঝিলের এম্ফিথিয়েটারে লাল সবুজের মহোৎসবে, সোমবারের আয়োজন ছিলো নৃত্য উৎসব। সভাপতির বক্তব্যে মো. জসিম উদ্দিন বলেন, নৃত্যশিল্প বাংলা সংস্কৃতির এক অনবদ্য সৃষ্টি। বাংলার মানুষের জীবনযাত্রা এবং সংস্কৃতির বাহক। এক সময় নৃত্যশিল্পীদের নিজেদের চেষ্টায় নাচ শিখতে হয়েছে। কিন্তু এখন সুযোগ বেড়েছে। 

মঞ্চের পাশাপাশি টিভি চ্যানেল বৃদ্ধি পাওয়ায় শিল্পীরা কাজ করার সুযোগ পাচ্ছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নৃত্যকলা বিভাগ খোলা হয়েছে। সেখান থেকে আগামীতে আরো ভালো ভালো শিল্পী বের হবেন। যাদের মাধ্যমে আবহমান বাংলার ঐতিহ্য আগামী প্রজন্মের মধ্যে বিকশিত হবে।

সোমবারের আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতিক। সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে মহোৎসব আয়োজনের জন্য এফবিসিসিআইকে ধন্যবাদ জানান তিনি। 

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন বলেই বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। আর বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে বলেই আজকে এই মহোৎসব করা সম্ভব হয়েছে। 

অতিথিদের সংক্ষিপ্ত বক্তব্য শেষে, পরিবেশিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

১৬ দিনব্যাপী “বিজয়ের ৫০ বছর: 

লাল সবুজের মহোৎসব” এর ১৪তম দিন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হবে মঞ্চনাটক। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে দেশগঠনে অবদানের জন্য বিভিন্ন সংগঠনকে সম্মাননা প্রদান করবে এফবিসিসিআই। 

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন সাবেক সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

বিষয়ঃ বাংলাদেশ

Share This Article


তৃতীয় ধাপে যেসব উপজেলায় ভোট অনুষ্ঠিত হবে

তীব্র গরমে হাসপাতালে বাড়ছে শিশু রোগী

এমভি আবদুল্লাহর ২৩ নাবিকের ভয়ঙ্কর ৩২ দিন!

ইরান-ইসরায়েল যুদ্ধের প্রভাব মোকাবিলায় প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

২১ নাবিক ফিরবেন জাহাজে, দুজন বিমানে

বাংলাদেশের বিজয়কে সুসংহত করার অন্তরায় বিএনপি : ওবায়দুল কাদের

ওমরাহ ভিসা নিয়ে সৌদি আরবে নতুন আইন

বাংলাদেশে ঢুকল মিয়ানমারের আরও ৪৬ বিজিপি সদস্য

তেজগাঁও স্টেশনের কাছে লাইনচ্যুত ‘যমুনা এক্সপ্রেস’

চলতি অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি হবে ৫.৭ শতাংশ: আইএমএফ

মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

মুজিবনগর দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী