আঞ্চলিক করিডোরের উন্নয়নে ৮ বিলিয়ন ডলার দিচ্ছে এডিবি

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১০:২৫, মঙ্গলবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)
এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)

ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ প্রসারে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) সবসময় সাব রিজিওনাল করিডোর অবকাঠামো উন্নয়নে কাজ করছে। সেই ধারাবাহিকতায় আঞ্চলিক করিডোরের উন্নয়নে আরও ৮ বিলিয়ন ডলার অর্থায়ন করবে এডিবি। প্রতি ডলার সমান ৮৫ টাকা ধরে এই অর্থায়নের পরিমাণ ৬৮ হাজার কোটি টাকা। এডিবি’র সদস্যভুক্ত ৬৮টি দেশ সহজ শর্তের এ ঋণ ব্যবহার করে আঞ্চলিক করিডোর উন্নয়ন করেছে। কনসেশনাল এ ঋণে সুদের হার ২ শতাংশ।

সোমবার এডিবি’র স্বাধীন মূল্যায়ন বিভাগ (আইইডি) থেকে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, এডিবি আঞ্চলিক অবকাঠামো উন্নয়নকে আরও বেগবান করতে ৫.৩ বিলিয়ন ডলার ঋণ ও অনুদান প্রতিশ্রুতি দিয়েছে এবং ২.৭ বিলিয়ন ডলার কো-ফাইন্যান্সিং করবে।

এশীয় ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ব্যবসা-বিনিয়োগ সম্প্রসারণে ওই ঋণ ব্যবহার করা হয়েছে। গ্রেটার মেকং সাবরিজিয়ন (জিএমএস) প্রোগ্রামের আওতায় এডিবি সাবরিজিওনাল করিডোরে ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন করেছে।

কর্মসূচির আওতায় এর আগে ২০১২ থেকে ২০২০ মেয়াদে ১৩০ প্রকল্পে ৫৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সংগ্রহ করেছিল এডিবি। প্রতি ডলার সমান ৮৫ টাকা ধরে বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ ৪ লাখ ৭৬ হাজার কোটি টাকা। উপ-আঞ্চলিক অর্থনৈতিক সম্প্রসারণ আরো প্রসারিত করতে বিভিন্ন ধরনের ইতিবাচক পদক্ষেপও প্রচার করছে সংস্থাটি।

এডিবি’র প্রকাশিত প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, এডিবি’র প্রাতিষ্ঠানিক সহায়তা প্রোগ্রামটি ছিল গুরুত্বপূর্ণ। জিএমএস কর্মসূচির আওতায় এডিবিভুক্ত দেশগুলোতে ১৩০টি বেশি প্রকল্পে অর্থায়ন করা হয়েছে। যার পরিমাণ ছিল ৫৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ফলে উপ-অঞ্চলের অর্থনৈতিক করিডোরগুলোতে অবকাঠামো অনেক উন্নত হয়েছে। নতুন ৮ বিলিয়ন ডলার অর্থায়নে আরো উন্নত হবে অর্থনৈতিক করিডোরগুলো।

এডিবি’র আইইডি মহাপরিচালক ইমানুয়েল জিমেনেজ বলেন, 'জিএমএস প্রোগ্রাম দেখিয়েছে কীভাবে আঞ্চলিক অর্থনৈতিক সহযোগিতা উন্নত করা যায়। সমবেতভাবে এই কর্মসূচির সুবিধা নিতে পারে দেশগুলো। আঞ্চলিক করিডোরে উভয় দেশ লাভবান হবে।’

এডিবি প্রধান মূল্যায়ন বিশেষজ্ঞ এবং প্রতিবেদনের প্রধান লেখক বিন গুয়েন বলেন, আঞ্চলিক চাহিদার কথা বিবেচনা করে পাইপলাইনে থাকা প্রকল্পগুলো নির্বাচন করা জরুরি। এখানে জাতীয় স্বার্থ না দেখে আঞ্চলিক স্বার্থ দেখা দরকার। দেশ-পর্যায়ের ফলাফল এবং আঞ্চলিক ফলাফলের মধ্যে একটি সুস্পষ্ট যোগসূত্রসহ আঞ্চলিক উন্নয়ন ফলাফলগুলিকে শক্তিশালী করতে হবে।

Share This Article


হুন্ডির প্রভাব : অধিক জনশক্তি রপ্তানি করেও বাড়ছে না রেমিট্যান্স!

ডিসেম্বর পর্যন্ত রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রার ৮৭.৭০ শতাংশ অর্জন : অর্থমন্ত্রী

হুন্ডিতে টাকা পাঠিয়ে দেশ ও নিজের ক্ষতি করছেন যেভাবে

হুন্ডির মাধ্যমে টাকা পাঠালে যা হয়

বাংলাদেশ কখ‌নও দেউ‌লিয়া হ‌বে না: অর্থমন্ত্রী

নয় দিনে এ‌ল ৭ হাজার কোটি টাকার রেমিট্যান্স

ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে বেড়েছে রিজার্ভ

চালু হচ্ছে আরেকটি নৌপথ, খুলছে সম্ভাবনার দুয়ার

তেল ও চিনির নতুন দাম নির্ধারণ করবে সরকার

রপ্তানি আয় কিছুটা কমার কারণ জানালেন প্রধানমন্ত্রী

লোহিত সাগর সংকটের যে প্রভাব পড়ছে বাংলাদেশের বাণিজ্যে

অর্থনৈতিক সংকটে পাশে থাকবে সৌদি!