সকাল ১১:৫০, বুধবার, ১৭ আগস্ট, ২০২২, ২ ভাদ্র

ইউপিতে বিদ্রোহীদের বিষয়ে কি ভাবছে আওয়ামী লীগ?

দেশের বিভিন্ন স্থানে চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীরা কোনঠাসা হয়ে পড়েছেন বিদ্রোহী প্রার্থীদের কাছে। অনেক ইউনিয়নে বড় ব্যবধানে জয়ও পাচ্ছেন তারা। এমতবস্থায় কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী, বিদ্রোহীদের বহিষ্কার করছে জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা। এক্ষেত্রে কোন কোন নেতা চূড়ান্ত বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রে কোন ধরণের সুপারিশও করছেন না। যদিও চূড়ান্ত বহিষ্কার শুধু মাত্র কেন্দ্রের এখতিয়ার।

তথ্য সূত্রে জানা যায়, শুধুমাত্র ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্রে করে ইতোমধ্যে সারা দেশে প্রায় দুই সহস্রাধিক নেতাকর্মীদের বহিষ্কার বা অব্যাহতি দিয়েছেন স্থানীয় নেতারা।

বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রহমান বলেন, ‘জেলা-উপজেলাসহ যেকোনো ইউনিটির দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের বহিষ্কারের ক্ষমতা শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় আ.লীগের রয়েছে। চূড়ান্ত বহিষ্কারের এখতিয়ার জেলা-উপজেলার সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নেই। কেউ যদি দলীয় শৃঙ্খলাবিরোধী কার্যক্রমে লিপ্ত থাকেন, তাকে বহিষ্কারের জন্য তারা কেন্দ্রের কাছে সুপারিশ করতে পারেন। কেন্দ্রীয় সুপারিশ ছাড়া চূড়ান্ত বহিষ্কার থেকে তৃণমূলের দায়িত্বশীল নেতাদের বিরত থাকতে হবে।’

তৃণমূলের দায়িত্বশীল নেতারা বলছেন, বিদ্রোহী ও তাদের মদতদাতাদের বিষয়ে দলের হাইকমান্ডের কঠোর নির্দেশনা রয়েছে। কেউ দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে বিদ্রোহী করলে এবং নৌকার বিরুদ্ধে গিয়ে বিদ্রোহীর পক্ষে কাজ করলে তাদের বহিষ্কার করা হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে কেন্দ্রের অনুমতি নেয়ার প্রয়োজন নেই বলেও মনে করছেন কেউ কেউ।

জানতে চাইলে- সিলেট জেলা আ.লীগের সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘কেন্দ্রের সুপারিশ নেয়ার সময় নেই। দলের নির্দশনা অনুযায়ী বিদ্রোহী ও বিদ্রোহীপন্থিদের বহিষ্কার করা হয়েছে। এ জন্য কেন্দ্রে সুপারিশ লাগবে বলে মনে করি না।’

জানতে চাইলে আ.লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম বলেন, ‘নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান করা এবং দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে বিদ্রোহ করলে নেতাকর্মীদের বহিষ্কার করা আ.লীগের দলীয় সিন্ধান্ত। সেই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য অনেক বিদ্রোহী ও তাদের সমর্থকদের সাময়িক অব্যাহতি দিয়েছে তৃণমূল আওয়ামী লীগ। তাদের চূড়ান্ত বহিষ্কারের জন্য কিছু সুপারিশ কেন্দ্রে এসেছে। কিছু সুপারিশ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। নৌকাবিরোধীদের কোনোভাবেই ছাড় দেয়া হবে না।’

Share This Article


সিরিয়ায় তুরস্কের বিমান হামলা, নিহত ১৭, আহত বহু

পাপনকে এক কাপ চা খাওয়াতে চান খুদে ‘সাকিব’

মিলছে না লঞ্চ ভাড়া বৃদ্ধির আনুপাতিক হার

দূর পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালালো যুক্তরাষ্ট্র

আমরা এখন তিনজন হতে যাচ্ছি: বিপাশা

নিজের লক্ষ্য অর্জনে পরমাণু অস্ত্রের প্রয়োজন: রাশিয়া

রান্নার সরঞ্জাম সরানোর নির্দেশ: মধ্যরাতে বিক্ষোভ খুবির ছাত্রীদের

গার্ডার দুর্ঘটনায় নিহতদের লাশ হস্তান্তর

পুরান ঢাকায় বহাল তবিয়তে দুই হাজার কেমিক্যাল প্রতিষ্ঠান

গাফিলতির মৃত্যু: সমাধানে আসে নানা সুপারিশ, নেই বাস্তবায়ন

খুদে সাকিব ভক্তের কাণ্ডে অবাক সাকিব

যেসব বিষয়ের উপর নির্ভর করে শিশুর উচ্চতা

ডলার নিয়ন্ত্রণে কমেছে বিলাসি পণ্য আমদানি!

ডলার অর্থায়নে কমলো সুদহার

নতুন ১২ ট্রাস্টি পেল নর্থ সাউথ