বিকাল ০৩:৪১, মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট, ২০২২, ১ ভাদ্র

খালেদার চিকিৎসা বিদেশ থেকে চিকিৎসক এনে সম্ভব নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বিদেশ থেকে চিকিৎসক এনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদ।

তিনি বলেছেন, খালেদা জিয়ার যে অসুস্থতা, তার যে রক্তক্ষরণ হচ্ছে, কয়েকবার রক্তক্ষরণ হয়েছে। এটা এমন একপর্যায়ে আছে, এখানে কালক্ষেপণ করার সুযোগ নেই। তার চিকিৎসা পুরোটাই একটা টিম ওয়ার্ক। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও জার্মানির জায়গায় জায়গায় এই চিকিৎসা হয় না, দু-একটা সেন্টারে হয়।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে ড্যাবের শীর্ষ নেতাদের এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

ডা. হারুন আল রশিদ বলেন, এটা টোটাল একটা টিম ওয়ার্ক। যদি চিকিৎসক আনা হয়, তিনি বলবেন, আমি তো একা পারব না। ওই টিমে যে নার্স, ওয়ার্ডবয়, প্রত্যেকেই ইকুইপড। একজনের ভুলে পুরো জিনিস পণ্ড হয়ে যেতে পারে। সে জন্য যারা বলছে যে বিদেশ থেকে চিকিৎসক এনে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা করানো যেতে পারে, এটা কালক্ষেপণ এবং সরকারের অবস্থানকে সমর্থন করা। সরকার যেহেতু বিদেশে যেতে দিতে চাইছে না, সে জন্য তাকে ব্যাকআপ দেওয়া।

বিএনপিপন্থি চিকিৎসকদের এই সংগঠনের নেতারা অভিযোগ করেন যে, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) নেতারা যে ভাষায় বিবৃতি দিয়েছেন, তা সরকারেরই বক্তব্য।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ড্যাবের মহাসচিব ডা. মো. আব্দুস সালাম।  তিনি বলেন, সাবেক তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী ও গণতন্ত্রের মা খালেদা জিয়া করোনাপরবর্তী জটিলতা, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, রিউমোটয়েড আর্থ্রাইটিস, লিভার, কিডনি ও হার্টের বিভিন্ন জটিলতা নিয়ে গত ১৩ নভেম্বর থেকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক।  তিনি এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে।  গত ২৮ নভেম্বর খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ড সর্বশেষ স্বাস্থ্যগত অবস্থা জানিয়েছেন এবং তার পরবর্তী চিকিৎসার জন্য কিছু সুপারিশ করেছেন।

Share This Article

আগামী বিশ্বের নতুন মাতব্বর হতে পারে যে দেশগুলো

বরগুনায় বাড়াবাড়ি হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ক্রেন দুর্ঘটনায় দায়ীদের খুঁজে বের করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

রাশিয়া থেকে ভারত তেল কিনতে পারলে আমরা কেন পারবো না : প্রধানমন্ত্রী

প্রাইভেটকারে গার্ডার: নিহতদের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ অব্যাহত রাখার বিষয়ে একমত বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র: মার্কিন রাষ্ট্রদূত

পাকিস্তানের মুলতানে বাস-ট্যাংকার সংঘর্ষে নিহত ২০, আহত ৬

‘হৃদয় ও রিয়া মানসিক ট্রমার মধ্যে আছেন’

তুরস্কের সামরিক বাহিনীর প্রথম নারী জেনারেল ওজলেম ইলমাজ

করোনায় বাল্যবিয়ের শিকার ৪৭ হাজার, শিশুশ্রমে ৭৭ হাজার শিক্ষার্থী


প্রাইভেটকারে গার্ডার: নিহতদের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ অব্যাহত রাখার বিষয়ে একমত বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র: মার্কিন রাষ্ট্রদূত

পাকিস্তানের মুলতানে বাস-ট্যাংকার সংঘর্ষে নিহত ২০, আহত ৬

‘হৃদয় ও রিয়া মানসিক ট্রমার মধ্যে আছেন’

তুরস্কের সামরিক বাহিনীর প্রথম নারী জেনারেল ওজলেম ইলমাজ

করোনায় বাল্যবিয়ের শিকার ৪৭ হাজার, শিশুশ্রমে ৭৭ হাজার শিক্ষার্থী

বিআরটি প্রকল্পের কাজ আপাতত বন্ধ: মেয়র আতিক

এবার লঞ্চভাড়া বাড়ল ৩০ শতাংশ

গিটার জাদুকরের জন্মদিন আজ

পোল্যান্ড ও জার্মানির শতাধিক যোদ্ধাকে হত্যার দাবি রাশিয়ার

প্রেমিক যুগল ভেবে ভাই-বোনকে আটকে নির্যাতন, ছাড়াতে এসে বাবাও শিকার

সিনেমাটি ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট হবে: সারা

২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে মৃত্যু এক হাজারের বেশি, আক্রান্ত সাড়ে চার লাখ

বনানীতে ট্রাকচাপায় প্রাণ হারালো বাইকবিডির জামিল

ভারতকে নিষিদ্ধ করলো ফিফা