সন্ধ্যা ০৬:৪৭, শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২, ২৮ শ্রাবণ

ইউপি নির্বাচনে স্বাক্ষর জাল করে নাম প্রত্যাহার!

প্রার্থী আলাউদ্দিন
প্রার্থী আলাউদ্দিন

ফেনী প্রতিনিধি: ফেনী সদরের ফরহাদ নগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন-২০২১- এ স্বাক্ষর জাল করে প্রতিদ্বন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম প্রত্যাহারের অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। এ মর্মে ২০ ডিসেম্বর ভুক্তভোগী স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আলাউদ্দিন একটি অভিযোগপত্র পাঠিয়েছেন কর্তৃপক্ষ বরাবর।

 

আজ ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আলাউদ্দিন এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ তুলে ধরেন তার প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকার প্রার্থী মোশারফ হোসেন টিপুর বিরুদ্ধে। সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন, তার স্বাক্ষর জাল করা মিথ্যা আবেদন পত্র পেয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা একক প্রার্থী হিসেবে মোশরফ হোসেন টিপুর নাম ঘোষণা করেছে।

এ সময় তিনি বলেন, ‘আমি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের কোনো আবেদন করিনি। এ ব্যাপারটির সমাধান না হলে আমি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব।’

এ সময় আলাউদ্দিন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের মিথ্যা আবেদনপত্র বাতিলের জন্য কর্তৃপক্ষ বরাবর পাঠানো আবেদনপত্র সাংবাদিকদের দেখান। ‘জাল জালিয়াতীর মাধ্যমে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার সংক্রান্ত বিষয়ে আপত্তি।’ বিষয় উল্লেখ করে আবেদনপত্রে আলাউদ্দিন বলেন, ‘ আমি... ১৩নং ফরহাদ নগর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করার জন্য বিগত ০৯/১২/২০২১ তারিখে আপনার বরাবরে মনোনয়নপত্র দাখিল করি। আমার মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাইয়ান্তে বৈধ বলে বিবেচিত হয়। আমি তখন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চাহিদা মোতাবেক সমস্ত কাগজপত্র দাখিল করি। মনোনয়নপত্র দাখিলের পর এলাকায় চিহ্নিত সন্ত্রাস প্রকৃতির লোকজন আমাকে বিভ্রান্ত করে হুমকি দিয়ে আসছে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করার জন্য। আমি কোনোভাবেই আমার দাখিলকৃত মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করব না।’

তিনি আবেদনপত্রে আরও উল্লেখ করেন, ‘গত ১৯ ডিসেম্বর রাত ১০টার সময় বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ও ইলেক্ট্রনিক্স যোগাযোগ মাধ্যমে জানতে পারলাম কে বা কারা আমার স্বাক্ষর জাল করে আপনার বরাররে আমার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন করেছে। প্রকৃতপক্ষে আমি আমার বৈধ মনোয়নপত্র প্রত্যাহারের কোনো আবেদন করিনি। আমি নিজে আপনার অফিসে যাইনি। অথবা আমার সমর্থনকারী, প্রস্তাবকারীও অত্র বিষয়ে কোনোপ্রকার আবেদন করেনি।’ অভিযোগপত্রটির অনুলিপি তিনি নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব, ফেনী জেলা প্রশাসক এবং পুলিশ সুপার, ফেনী সদরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বরাবর পাঠিয়েছেন।

ঘটনার শিকার চেয়ারম্যান প্রার্থী আলাউদ্দিনের বাড়ি ফেনী সদরের নৈরাজপুর গ্রামে। তার পিতার নাম আব্দুল কুদ্দছ, মায়ের নাম জাহানারা বেগম। তিনি ফেনী সদরের ১৩নং ফরহাদ নগর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

আলাউদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি কেউ আমার সঙ্গে চক্রান্ত করে আমাকে দমানোর জন্য এই কাজটি করেছে। আমি নির্বাচন করব এবং মানুষ যদি আমাকে ভোট দেয়, আমি নিশ্চয় জয়লাভ করে এর জবাব দেবো।’

Share This Article


সব দলকে এক হয়ে সরকার হটাতে আন্দোলন করতে হবে: মান্না

রুশ বিমান বহরের ক্ষমতা কমেছে কৃষ্ণ সাগরে

নির্বাচন সামনে রেখে সরকার বিদেশি চাপে আছে: ফখরুল

ট্রাম্পের বাড়িতে হানা দিলো এফবিআই!

রাশিয়ানদের আস্থা বেড়েছে পুতিনের ওপর

অন্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশের মানুষ সুখে আছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাপ্তাহিক ছুটি দুদিন করার চিন্তা

ইরানে ড্রোন প্রশিক্ষণ নিচ্ছে রাশিয়া: যুক্তরাষ্ট্র

ইউক্রেন ছাড়ল গমবাহী প্রথম জাহাজ

বিশ্ববাজারে জনসন বেবি পাউডার বিক্রি বন্ধের ঘোষণা

ওয়েবিলের নামে বেশি ভাড়া নিলে রুট পারমিট বাতিল

‘যৌবনের মূল্যায়ন কর বার্ধক্যের আগে’

শ্রীলংকায় ১ কোটির বেশি রুপি দান করল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাররা

হেরে গেলেও একে অন্যের পাশে থাকার ঘোষণা

শিল্পাঞ্চল এলাকায় সাপ্তাহিক ছুটি নির্ধারণ