সেই ব্যাংক ক্ষমা চাইল ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রীর কাছে

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সন্ধ্যা ০৬:১০, বৃহস্পতিবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
জব্বার
জব্বার

চেকে বাংলায় ‘ডিসেম্বর’ লেখায় একটি ব্যাংক ফেরত পাঠালে বিষয়টি নিয়ে ‘আক্ষেপ’ প্রকাশ করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

চেকে বাংলায় ‘ডিসেম্বর’ লেখায় একটি ব্যাংক ফেরত পাঠালে বিষয়টি নিয়ে ‘আক্ষেপ’ প্রকাশ করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। বিষয়টি নিয়ে  শুরু হয় আলোচনা । পরে কোনো পরিবর্তন ছাড়াই টাকা দেওয়া হয়েছে এবং সেই ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়েছে। আরেকটি স্ট্যাটাসে বিষয়টি নিশ্চিত করেন মন্ত্রী।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা ৩৯ মিনিটে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন মোস্তাফা জব্বার। সেখানে ব্যাংকে চেক ভাঙানোর বিষয়ে নিজের তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে লেখেন, ‘মন চাইছে আত্মহত্যা করি। একটি চেকে আমি ডিসেম্বর বাংলায় লিখেছি বলে কাউন্টার থেকে চেকটি ফেরত দিয়েছে। কোন দেশে আছি?’

এরপরই বিষয়টি নিয়ে শুরু হয় আলোচনা। এমন স্ট্যাটাস প্রসঙ্গে মন্ত্রী জানান, তিনি চেকে বরাবরই মাসের নাম বাংলায় লেখেন। মতিঝিলের প্রিন্সিপাল শাখায় এ নিয়ে কোনো সমস্যা হয়নি। এবারের চেকেও তিনি লেখেন ‘০২ ডিসেম্বর, ২০২১’। এটি ছিল বেয়ারার চেক। যাকে চেকটি দিয়েছেন তিনি ব্যাংকটির এলিফ্যান্ট রোড শাখায় জমা দিতে গিয়ে প্রথমে ব্যর্থ হন। মাসের নাম বাংলায় লেখার চেকটি ফেরত দেয় ব্যাংক। পরে সেই ব্যক্তি বাসায় ফিরে মন্ত্রীকে বিষয়টি জানান। এরপর যোগাযোগ করে চেকটি ‘অনার’ হয় বলে জানান।

কোনো প্রতিষ্ঠানকে খাটো করতে স্ট্যাটাসটি দেননি জানিয়ে মোস্তাফা জব্বার বলেন,  ‘ভাষার মর্যাদা রক্ষায় স্ট্যাটাসটি দিয়েছি। বাংলাদেশই একমাত্র ভাষাভিত্তিক রাষ্ট্র। ভাষার জন্যই এই রাষ্ট্রের জন্ম। আগে প্রযুক্তিগত দিক থেকে বাংলা কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও এখন সেই অবস্থা নেই।’

এদিকে মন্ত্রীর স্ট্যাটাস নিয়ে ফেসবুকে অনেকে রসিকতাও করেন। স্ট্যাটাসের কমেন্টে মোস্তাফা জব্বার লেখেন, ‘আপনারা অনেকেই আমার দুর্দশায় সংহতি প্রকাশ করেছেন। ধন্যবাদ। কেউ কেউ হা হা করেছেন-তাহারা “কাহার জন্ম নির্ণয় না জানি”। সুখবর হলো অবশেষে চাপে পড়ে চেকটির কোন পরিবর্তন ছাড়াই টাকা দেয়া হয়েছে ও ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়েছে। তারা জানিয়েছে আর কখনও এমন ভুল বা বাংলা হরফ নিয়ে কোন বিভ্রান্তি হবে না।’ ঘটনাটি ব্যাংকের ওই শাখার কর্মকর্তাদের মানসিকতার কারণে ঘটেছে বলে জানান তিনি।

একই কমেন্টবক্সের বিপ্লাইতে মন্ত্রী লেখেন, ‘ব্যাংকের নিয়মে বাংলা বিরোধিতার কিছু নেই। এটা ওই শাখার কিছু লোকের মানসিকতা। কেউ এমন অবস্থায় পড়লে অবশ্যই প্রতিবাদ করবেন। আমি পাশে আছি।’

Share This Article

যাঁরা ‘আমি রাজাকার’ বলেন, তাঁদের শেষ দেখে ছাড়বে ছাত্রলীগ

এ যুগের রাজাকারদের পরিণতি ওই যুগের রাজাকারদের মতই হবে : শিক্ষামন্ত্রী

কোটা আন্দোলনকারীদের হটাতে অ্যাকশনে পুলিশ

কোটা পুনর্বহাল করে হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ

শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুকন্যাকে কটূক্তি করেনি, কেউ শিখিয়ে দিয়েছে

আর্জেন্টিনার ইতিহাস গড়া জয়, কোপার শিরোপা মেসিদের

ঢাবি হলের কক্ষে কক্ষে কোটাব্যবস্থা নিয়ে প্রচারপত্র দিলেন ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতারা

প্রাণহানির প্রতিটি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত হবে : প্রধানমন্ত্রী

পারলে সশরীরের ঢাকায় যেতাম, আন্দোলন নিয়ে কবীর সুমন

যুদ্ধবিরতির চুক্তি নিয়ে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ


সরকার শান্তিপূর্ণ সমাধানের দিকে এগোতে চায় : তথ্য প্রতিমন্ত্রী

আইনমন্ত্রীর প্রস্তাব নিয়ে আন্দোলনকারীরা আলোচনায় বসেছেন

লিবিয়া থেকে ফিরলেন ১৪৪ বাংলাদেশি

জাহাঙ্গীরনগর ক্যাম্পাস ছাড়ছেন শিক্ষার্থীরা

নিজ দেশের নাগরিকদের ঘরে থাকার আহ্বান ভারতীয় হাইকমিশনের

শিক্ষার্থীদের পরিবর্তে আজ মাঠে নেমেছে বিএনপি-জামায়াত: কাদের

পুলিশ সদস্যদের ওপর সাধারণ শিক্ষার্থীদের হামলা, উদ্ধার করল র‌্যাবের হেলিকপ্টার

‘কমপ্লিট শাটডাউনেও’ চলবে বাস

প্রাণহানির প্রতিটি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত হবে : প্রধানমন্ত্রী

পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের পর ঢাবি ছাড়ছেন শিক্ষার্থীরা

শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহ্বান পুলিশ সদর দপ্তরের

হত্যাকান্ডে জড়িতদের উপযুক্ত শান্তি নিশ্চিক করা হবে : প্রধানমন্ত্রী