চলন্ত বিমানের দরজা খোলার চেষ্টা করলেন নারী!

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১০:২৬, বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর, ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

একটি ফ্লাইট যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের হিউস্টন থেকে কলম্বাসের ওহাইওতে যাচ্ছিল। কিন্তু বিমানটি আরকানসাসে জরুরি অবতরণ করতে বাধ্য হয়। কারণ, বিমানের দরজা খোলার চেষ্টা করেছিলেন এক নারী যাত্রী। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

 

প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘটনাটি ঘটেছে সাউথওয়েস্ট এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে। যে নারী বিমানের দরজা খোলার চেষ্টা করেছিলেন তার নাম এলাম আগবেগিনু। যুক্তরাষ্ট্রে এই অপ্রীতিকর ঘটনা অনেকদূর প্রবাহিত হয়েছে। এ ঘটনার পর ওই নারীকে আটক করা হয়। এরপর তাকে আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়।

আরকানসাসের ইস্টার্ন ডিসট্রিক্টের আদালত মামলার নথি প্রকাশ করেছে। এতে দেখা গেছে, এলমের বয়স ৩৪ বছর। তিনি যখন বিমানের দরজা খোলার চেষ্টা করেন, তখন এটি ৩৭ হাজার ফুট উপরে উড়ছিল।

এলম কীভাবে বিমানের দরজা খোলার চেষ্টা করেছিল তার বিবরণ আদালতের নথিতে রয়েছে। এতে বলা হয়, উড্ডয়নের সময় ওই নারী উঠে বিমানের পেছনের দিকে চলে যান। এ সময় একজন ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্ট তাকে দেখতে পান।

উড়োজাহাজের ওই কর্মী এলমকে জিজ্ঞেস করেন, তিনি শৌচাগার খুঁজছেন কি না। নইলে তাকে আসনে যেতে হবে। কিন্তু এলম তা না শুনে দরজা খোলার চেষ্টা করেন। এ সময় একজন যাত্রী দরজা খোলার চেষ্টার শব্দ শুনতে পান। যখন তিনি উঠে এলমকে থামানোর চেষ্টা করলেন, তখন এলম তাকে কামড় দেন।

আদালতের নথি সূত্রে জানা গেছে, দরজা খুলতে না পেরে এলম বেশ হতাশ হয়েছেন। হতাশা থেকে তিনি প্লেনের মেঝেতে মাথা ঠুকেন। এ সময় তিনি বলেন, 'যীশু তাকে ওহাইও যেতে বলেছিলেন এবং তিনি যাওয়ার সময় প্লেনের দরজা খুলতে বলেছিলেন।'

পরে বিমানটি আরকানসাসের লিটল রকের হিলারি ক্লিনটন জাতীয় বিমানবন্দরে অবতরণ করে। গ্রেফতারের পর এলম অবশ্য ভিন্ন ভিন্ন কথা বলেছেন। একবার তিনি বলেন, স্বামীকে না জানিয়ে ওহাইও যাচ্ছিলেন তিনি। আবার বলেছেন, বেশিক্ষণ তিনি ফ্লাইটে উড়তে পারেন না।

Share This Article