স্ত্রীর মামলায় মহাবিপাকে স্বামী, ৯৯৯৯ সাল পর্যন্ত নির্বাসন

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ দুপুর ১২:১৯, সোমবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২ পৌষ ১৪২৮

নিউজ ডেস্কঃ ইসরায়েলি স্ত্রীকে ছেড়ে দিয়ে মহাবিপাকে পড়লেন এক অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক। ৪৪ বছরের নোয়াম হুপার্ট নামের এই ব্যক্তি মূলত ইসরায়েলি তালাক আইনের কবলে পড়েছেন। ইসরায়েলের একটি আদালত ডিভোর্সের মামলায় ওই অস্ট্রেলিয়ানকে হাজারো বছর ইসরায়েলে নির্বাসনে থাকতে বলে রায় দিয়েছেন। 

স্ত্রীর ডিভোর্সের মামলায় আদালতের রায়ে বলা হয়েছে, সন্তানদের সহযোগিতার জন্য ওই বাবাকে হয় তিন মিলিয়ন ডলারের বেশি প্রদান করতে হবে। নয়তো শাস্তিস্বরূপ ৯৯৯৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত তাকে ইসরায়েল ছাড়তে দেয়া হবে না। আদালত জানিয়েছেন, ‘হয় জরিমানার লাখ লাখ টাকা দাও, নয়তো ইসরায়েলে পচেঁ মরো।’ গত ৮ বছর ধরে সেখানে আটকে আছেন নোয়াম হুপার্ট। ২০১২ সালে অস্ট্রেলিয়া থেকে তিনি তার স্ত্রী ইসরায়েলে ফিরে যান এবং সেদেশের তালাক আইনের অধীনে মামলা ঠুকে দেন। মানবাধিকার সংগঠনগুলোর মতে ইসরায়েলে এই আইনটি ‘কঠোর ও অত্যধিক’।

বিষয়টি নিয়ে নোয়াম জানিয়েছেন, ২০১৩ সাল থেকে আমাকে ইসরায়েলে আটকে রাখা হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ান হয়ে ইসরায়েলি নাগরিককে বিয়ে করার খেসারত দিতে হচ্ছে আমাকে। সন্তানদের কাছে থাকার স্বার্থে ২০১২ সালে ইসরায়েলে আসি, এর স্ত্রীর মামলায় নির্বাসনে থাকতে হচ্ছে- মানে আমার ইসরায়েল ছাড়ার অনুমতি নেই।

Share This Article

যাঁরা ‘আমি রাজাকার’ বলেন, তাঁদের শেষ দেখে ছাড়বে ছাত্রলীগ

এ যুগের রাজাকারদের পরিণতি ওই যুগের রাজাকারদের মতই হবে : শিক্ষামন্ত্রী

কোটা আন্দোলনকারীদের হটাতে অ্যাকশনে পুলিশ

কোটা পুনর্বহাল করে হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ

শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুকন্যাকে কটূক্তি করেনি, কেউ শিখিয়ে দিয়েছে

আর্জেন্টিনার ইতিহাস গড়া জয়, কোপার শিরোপা মেসিদের

ঢাবি হলের কক্ষে কক্ষে কোটাব্যবস্থা নিয়ে প্রচারপত্র দিলেন ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতারা

প্রাণহানির প্রতিটি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত হবে : প্রধানমন্ত্রী

পারলে সশরীরের ঢাকায় যেতাম, আন্দোলন নিয়ে কবীর সুমন

‘পত্রপত্রিকা কী লিখল সেটা দেখে নার্ভাস হওয়ার কিছু নেই’