লঞ্চে ত্রুটি পেয়েছে তদন্ত কমিটি

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ দুপুর ১২:১১, রবিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ১১ পৌষ ১৪২৮

ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে এমভি অভিযান-১০ লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ইঞ্জিন রুম থেকে হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় গঠিত কমিটির প্রাথমিক তদন্তে বেরিয়ে এসেছে, লঞ্চের ইঞ্জিনেও ত্রুটি থাকার বিষয়।

গতকাল শনিবার ঝালকাঠির সুগন্ধা নদী তীরে নোঙর করে রাখা পুড়ে যাওয়া লঞ্চটি পরিদর্শন করেছেন তদন্ত দলের সদস্যরা।

পরিদর্শন শেষে তদন্ত দলের প্রধান নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মোঃ তোফায়েল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‌‘আমরা ইঞ্জিনে কিছু ত্রুটি পেয়েছি।’

এ ছাড়া কাগজে-কলমে লঞ্চটি যে মাস্টারের (চালক) চালানোর কথা ছিলো, তিনি চালাচ্ছিলেন না বলেও জানা গেছে। লঞ্চে মাস্টার নিয়োগের বিষয়টি নৌপরিবহন অধিদপ্তরকে অবহিত করতে হয়।

নৌপরিবহন অধিদপ্তরের সার্ভেয়ার মাহবুব রশিদ গণমাধ্যমকে বলেন, অভিযান-১০ লঞ্চের চারজন মাস্টার ও ড্রাইভারের মধ্যে তিনজনের নিয়োগের বিষয়টি মালিক অধিদপ্তরকে জানাননি। লঞ্চটির সার্ভে সনদে প্রধান মাস্টার হিসেবে যার নাম আছে, তার পরিবর্তে অন্য এক মাস্টার লঞ্চটি চালাচ্ছিলেন। এটি নিয়মের ব্যত্যয়। লঞ্চমালিক মাস্টার ও ড্রাইভার পাল্টাতে পারেন। তবে সেটি করতে হবে নৌপরিবহন অধিদপ্তরকে জানিয়ে।

এদিকে তদন্ত দল জানতে পেরেছে, আগুন লাগার সময় লঞ্চটির প্রধান দরজা বন্ধ ছিলো। যে কারণে জ্বলন্ত অবস্থায় লঞ্চটি নদীতীরের কাছে নোঙর করলেও যাত্রীরা প্রধান দরজা থেকে বের হতে পারছিলেন না। যে যেভাবে পেরেছেন, জানালা দিয়ে নদীতে ঝাঁপ দিয়েছেন।

Share This Article


ড. কামাল হোসেন রহস্যপুরুষ: কাদের

খেলা হবে আর আমাদের কর্মীরা ললিপপ খাবে তা হবে না: কাদের

রাজধানীতে প্রাইভেটকারে আগুন, দগ্ধ ২

বাংলাদেশের মানুষ ‘আমাদের মতই পাগল’, আর্জেন্টিনা দলের টুইট

যশোরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কাভার্ডভ্যান হোটেলে, নিহত ৫

পার্বত্য শান্তিচুক্তির ২৫তম বর্ষপূর্তি আজ

তিন মাসের মধ্যে নভেম্বরে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স

রেমিট্যান্স অর্জনে সপ্তম বাংলাদেশ: বিশ্ব ব্যাংক

আর্জেন্টিনাকেও ভয় পাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়া

ইউরোপকে পাশ কাটিয়ে দেশের গার্মেন্টস খাতের চমক

শেষ ষোলোর শেষ বেলায় ক্রোয়েশিয়া, মরক্কো, স্পেণ ও কোস্টারিকা

ফালুর বিরুদ্ধে অর্থ পাচার মামলার পুনঃ তদন্ত ২৩ ফেব্রুয়ারি