পদ্মা সেতুতে ভর করে এগোচ্ছে ‘শেখ হাসিনা তাঁতপল্লী’

  বাংলাদেশের কথা ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সন্ধ্যা ০৭:০৯, শনিবার, ৪ জুন, ২০২২, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

পদ্মাপাড় প্রত্যন্ত এলাকা হওয়ায় আগে উন্নয়নের তেমন কোন ছোঁয়া লাগেনি। তবে পদ্মা সেতুর কাজ শুরু হওয়ার পরই পাল্টে যেতে থাকে এ অঞ্চলের উন্নয়নের চিত্র।

পদ্মা সেতুর শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে নাওডোবায় ও মাদারীপুর জেলাকে যুক্ত করে দেশকে অর্থনৈতিকভাবে লাভবান করতে প্রায় ১২০ একর জমির ওপর গড়ে উঠছে ‘শেখ হাসিনা তাঁতপল্লী’।

 

সেতুর নির্মাণকাজ সম্পূর্ণ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এ তাঁতপল্লীতে দিনরাত চলছে কর্মযজ্ঞ। মাটি ভরাট, সীমানাপ্রাচীর নির্মাণসহ চলছে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ।

এক হাজার ৯১১ কোটি টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্পের কাজ বাস্তবায়ন করছে বাংলাদেশ তাঁত বোর্ড।

সংশ্লিষ্টদের মতে, তাঁতপল্লীতে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে লাখো মানুষের কর্মসংস্থান হবে। দেশের তাঁত বস্ত্রের উৎপাদনও বাড়বে কয়েক গুণ, যা অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।

প্রকল্পের আওতায় তাঁতিদের কর্মসংস্থান, দক্ষতা বৃদ্ধি, পণ্যের গুণগতমান উন্নয়ন, বাজারজাতকরণ, ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত, দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে তাঁতবস্ত্র সরবরাহের মাধ্যমে জীবনমান উন্নয়ন ঘটবে।

Share This Article